দীক্ষিত ব‍্যাখ‍্যা: যত্রানেকবিধম্ আন্তর্য‍্যং তত্র স্থানত আন্তর্য‍্যং বলীয়ো যথা স‍্যাৎ

স্বপ্রসঙ্গ দীক্ষিত ব‍্যাখ‍্যা (বৃত্তি ব‍্যাখ‍্যা) যত্রানেকবিধম্ আন্তর্য‍্যং তত্র স্থানত আন্তর্য‍্যং বলীয়ো যথা স‍্যাৎ

স্বপ্রসঙ্গ দীক্ষিত ব‍্যাখ‍্যা (বৃত্তি ব‍্যাখ‍্যা)- যত্রানেকবিধম্ আন্তর্য‍্যং তত্র স্থানত আন্তর্য‍্যং বলীয়ো যথা স‍্যাৎ

যত্রানেকবিধম্ আন্তর্য‍্যং তত্র স্থানত আন্তর্য‍্যং বলীয়ো যথা স‍্যাৎ।
উৎস:- আচার্য ভট্টোজি দীক্ষিত রচিত সিদ্ধান্তকৌমুদী গ্রন্থের পূর্বার্ধে আলোচ‍্য দীক্ষিত বৃত্তিটি বিদ‍্যমান।

প্রসঙ্গ:- আচার্য ভট্টোজি দীক্ষিত স্থানেঅন্তরতমঃ সূত্রের বৃত্তিতে বলেছেন- যত্রানেকবিধম্ আন্তর্য‍্যং তত্র স্থানত আন্তর্য‍্যং বলীয়ো যথা স‍্যাৎ।

বৃত্তিটির অর্থ :- যেখানে অনেক রকম আন্তর্য‍্য থাকবে সেখানে উচ্চারণস্থানে আন্তর্য‍্য বলীয় হবে।

দীক্ষিত ব‍্যাখ‍্যা (বৃত্তি ব‍্যাখ‍্যা)- যত্রানেকবিধম্ আন্তর্য‍্যং তত্র স্থানত আন্তর্য‍্যং বলীয়ো যথা স‍্যাৎ

ষষ্ঠী স্থানেযোগা – সূত্র থেকে স্থানে অংশটির অনুবৃত্তি করা গেলেও স্থানেঅন্তরতমঃ সূত্রে পুনরায় স্থানে পদটি দেওয়ার তাৎপর্য লক্ষ‍্য করে বৈয়াকরণরা বলেছেন স্থানে ইতি বর্তমানে পুনঃ স্থানেগ্রহণং যত্রানেকবিধম্ আন্তর্য‍্যং বলীয়ো যথা স‍্যাৎ। দুটি স্থানে শব্দের একটির অর্থ প্রসঙ্গ অন‍্যটির অর্থ উচ্চারণস্থান। স্থানেঅন্তরতমঃ সূত্রের অর্থ হয়- একাধিক আন্তর্য‍্য অনুসারে কার্যের প্রাপ্তি হলে উচ্চারণস্থানের সাদৃশ‍্য অনুসারে কার্য‍্য হবে। যেমন- চেতা, স্তোতা ইত্যাদি।

চিত্ত স্তু ধাতুর শেষে তৃচ্ প্রত‍্যয় করলে চি-তৃ, স্তু-তৃ এরূপ অবস্থায় তৃচ্ প্রত‍্যয়ের আর্ধধাতুক সংজ্ঞা হওয়ায় সার্বধাতুকার্ধধাতুকয়োঃ সূত্রানুসারে চি-এর ইকারের এবং স্তু এর উকারের গুন প্রাপ্তি হয়। কিন্তু পাণিনি অদেঙ্ গুণঃ– সূত্র দ্বারা অকার, একার ও ওকার এই তিনটির গুণ সংজ্ঞা করেছেন বলে তিনটিরই প্রাপ্তি হয়। যেস্থলে অনিয়মে একাধিক কার্য‍্যের প্রসক্তি হয়, সেস্থলে পরিভাষাই একমাত্র নিয়মিকা হয়ে থাকে। এস্থলে স্থানেঅন্তরতমঃ অনুসারে অকার, একার ও ওকার এই তিনটির এই তিনটির মধ‍্যে যেটি স্থানী ইকার ও উকারের অন্তরতম সেটি হবে। তালব‍্য ইকার এবং ওষ্ঠ‍্য উকারের স্থানে তালুস্থান ও ওষ্ঠস্থান জন‍্যত্বরূপ সাদৃশ‍্য অনুসারে যথাক্রমে একার ও ওকার প্রাপ্ত হয় এবং প্রমাণ বা মাত্রাকৃৎ সাদৃশ‍্য অনুসারে একমাত্রিক ইকার এবং একমাত্রিক উকারের স্থানে ওকার হবে। ফলে চেতৃ ও স্তোতৃ প্রয়োগ সিদ্ধ হয়ে থাকে।

Leave a Comment