ভারতীয় দর্শন: প্রতীত‍্যসমুৎপাদতত্ত্ব

প্রতীত‍্যসমুৎপাদতত্ত্ব ভারতীয় দর্শন(টীকা) অনুসারে আলোচনা করা হল।

(টিকা) প্রতীত‍্যসমুৎপাদতত্ত্ব – ভারতীয় দর্শন

প্রতীত‍্যসমুৎপাদতত্ত্ব:- প্রাচ‍্য ও পাশ্চাত‍্য দর্শনে কার্যকারণ তত্ত্বের যে ধারাবাহিক গুরুত্ব  লক্ষ‍্য করা যায় বৌদ্ধদর্শনেও তা পরিলক্ষিত হয়। বুদ্ধদেবের মতে, বাহ‍্য ও মনোজগতে প্রতিনিয়ত যে ঘটনা প্রভাব বর্তমান তাঁর পিছনে বর্তমান একটি সর্বব‍্যাপী কার্যকারন নিয়ম আছে। এই কার্যকারন নিয়মেই হল প্রতীত‍্যসমুৎপাদতত্ত্ব।

প্রতীত‍্যসমুৎপাদতত্ত্ব শব্দের অর্থ

      প্রত‍ীত‍্য শব্দের অর্থ শর্তসাপেক্ষ এবং সমুৎপাদ শব্দের অর্থ উৎপন্ন হওয়া। অর্থাৎ প্রতীত‍্যসমুৎপাদ কথাটির আক্ষরিক অর্থ শর্তসাপেক্ষ কোন কিছুর উৎপত্তি- ‘ ইদং প্রতীত‍্য ইদং  সমুৎপাদতে।’ অর্থাৎ  এই কারনের ফলে এই কার্য উৎপন্ন হয়েছে। এই তত্ত্ব অনুসারে আকস্মিক ভাবে কিছু ঘটে না – ‘অস্মিন্ যতি ইদং ভবতি’ অর্থাৎ একটি ঘটনা সর্বদাই অন‍্য  একটি ঘটনা ঘটার ফলে ঘটে।

প্রতীত‍্যসমুৎপাদতত্ত্ব

       পালি পিটক অনুসারে অবিদ‍্যায় হল জাগতিক সমস্ত দুঃখের উৎপত্তির মূল কারন। অবিদ‍্যার থেকে জন্মায় সংস্কার, সংস্কারে থেকে বিজ্ঞান, বিজ্ঞান থেকে নামরূপ, নামরূপ থেকে ষড়ায়তন, ষড়ায়তন থেকে স্পর্শ, স্পর্শ থেকে বেদনা, বেদনা থেকে তৃষ্ণা, তৃষ্ণা থেকে উপাদান, উপাদান থেকে ভব, ভব থেকে জন্ম, জন্ম থেকে জরা-মরণ ইত‍্যাদি। (অবিদ‍্যা-সংস্কার- বিজ্ঞান- নামরূপ- ষড়ায়তন -স্পর্শ- বেদনা- তৃষ্ণা- উপাদান- ভব- জন্ম- জরা-মরণ- এই শৃঙ্খলে যেহেতু আমরা বারোটি অংশ পাই, তাই এর নাম দ্বাদশ নিদান বা ভবচক্র। এই ভব চক্রের অন্তর্গত বারোটি অংশকে মানবজীবনে অতীত, বর্তমান, ভবিষ‍্যৎ এই তিন  ভাগে ভাগ করা যায়। অবিদ‍্যা, সংস্কার হল অতীত জীবনের অন্তর্গত। বিজ্ঞান- নামরূপ- ষড়ায়তন- স্পর্শ – বেদনা- তৃষ্ণা- উপাদান ও ভব হল বর্তমান জীবনের অন্তর্গত। এবং জন্ম ও জরামরণ হল ভবিষ‍্য‍ৎ জীবনের অন্তর্গত। দুঃখ যেহেতু কারণ শৃঙ্খলের ফল এবং দুঃখের মূল কারন যেহেতু অবিদ‍্যা তাই অবিদ‍্যার বিনাশ হলে দুঃখেরও আত‍্যন্তিক বিনাশ হয়।

অবিদ‍্যার বিনাশ এবং এর ফলে দুঃখের আত‍্যন্তিক নিবৃত্তি হলে জীবের যে অবস্থা হয় তাকেই ব‍ৌদ্ধ দর্শনে নির্বান বলা হয়। বুদ্ধদেব প্রতীত‍্যসমুৎপাদকে ধর্মের অভিন্ন বলেছেন। তিনি বলেন- যে প্রতীত‍্যসমুৎপাদ জেনেছে সে ধর্ম জেনেছে, আর যে ধর্ম জেনেছে সে প্রতীত‍্যসমুৎপাদও জেনেছে।’

Leave a Comment