( অর্থশাস্ত্র) রাজলেখ বলতে কী বোঝ? রাজলেখ কয় প্রকার ও কী কী?

অর্থশাস্ত্র – রাজলেখ বলতে কী বোঝ? রাজলেখ কয়প্রকার ও কী কী? ( Arthashastra royal writing for B.A. Sanskrit Hons and pass)

রাজলেখ বলতে কী বোঝ? রাজলেখ কয়প্রকার ও কী কী?

রাজলেখ বলতে কী বোঝ?

তালপত্রে বা ভূর্জপত্রে রাজা তার প্রজাদের উদ্দেশ‍্যে যে লিখিত আদেশ প্রেরন করেন, তাকেই আচার্য গনেরা রাজলেখ বা শাসন বলে উল্লেখ করেন। রাজ‍্যশাসনের ক্ষেত্রে এই শাসনের গুরুত্ব অপরিসীম।

কৌটিল‍্য বলেছেন- “শাসনপ্রধানা হি রাজানঃ।’


রাজলেখ কয়প্রকার ও কী কী?

রাজলেখ বা শাসন মোট আটপ্রকার। যথাক্রমে –


১) প্রজ্ঞাপনা

রাজা বিজ্ঞাপিত করে বলেন – এইরূপ যদি হয় তবে দিয়ে যাও। এইরূপ রাজার লিখিত আদেশকে প্রজ্ঞাপনা বলে।


২) আজ্ঞা

রাজা তার প্রজাদের উদ্দেশ‍্যে কোনো শাস্তিমূলক বা পুরস্কার মূলক আদেশ করলে,তাকে আজ্ঞা বলে।


৩) পরিদান

রাজা কোনো ব‍্যাক্তিকে রাজলেখের মধ‍্য দিয়ে সম্মান দেখালে,তাকে পরিদান বলে।


৪) পরিহার

কোনো নির্দিষ্ট জাতি বা গ্রামের কর মুকুবের জন‍্য রাজা যে লিখিত আদেশ করেন,তাকে পরিহার বলে।


৫) নিসৃষ্টি

বিশ্বস্ত ব‍্যাক্তির বক্তব‍্যকে প্রমানরূপে প্রতিষ্ঠা করা হয় যে রাজলেখের মধ‍্য দিয়ে তার নাম নিসৃষ্টি।


৬) প্রাবৃত্তিক

দৈবকৃত বা মনুষ‍্যকৃত বিপদের প্রতিকার কল্পে রাজা যে লেখে নির্দেশ প্রেরন করেন,তার নাম প্রাবৃত্তিক।

৭) প্রতিলেখ

যে শাসনে অন‍্যের লেখপত্র দেখে বা রাজার উত্তর আলোচনা করে যে উত্তরলিপি প্রস্তুত করা হয়,তার নাম প্রতিলেখ।


৮) সর্বত্রগ

পথিকদের রক্ষা ও উপকার বিষয়ে রাজা যে আদেশ দেন?তার নাম সর্বত্রগ।

অর্থশাস্ত্র ( দূতপ্রণিধি ) অনুসারে গুরুত্বপূর্ণ টীকা গুলি পড়ুন

Leave a Comment