দৃষ্টান্ত ও প্রতিবস্তুপমা অলঙ্কারের পার্থক্য

দৃষ্টান্ত ও প্রতিবস্তুপমা অলঙ্কারের পার্থক্য লিখ। অলংকার প্রসঙ্গে আলোচনার পর দৃষ্টান্ত ও প্রতিবস্তুপমা অলঙ্কারের পার্থক্য নিম্নে আলোচিত হল ।

দৃষ্টান্ত ও প্রতিবস্তুপমা অলঙ্কারের পার্থক্য

অলংকার কি বা অলংকার সম্পর্কে সম্পূর্ণ তথ্য জানতে এখানে ক্লিক করুন ।

দৃষ্টান্ত ও প্রতিবস্তুপমা অলঙ্কার

দৃষ্টান্ত প্রতিবস্তুপমা দুটিই সাদৃশ্যমূলক অলংকার। উভয় অলংকারে দুটি বাক্য থেকে থাকে এবং উভয় ক্ষেত্রেই বাক‍্যদ্বয়ের মধ্যে সাদৃশ্যটি গম‍্য থাকে। উভয় অলংকারেই বাক‍্যদ্বয়ের মধ্যে সামান্য বিশেষভাব বা কার্যকারণভাব অনুপস্থিত। এই সাদৃশ‍্য থাকা সত্ত্বেও এই দুই অলংকারের পার্থক্য হল-

দৃষ্টান্ত অলংকারের লক্ষণ হল –


” দৃষ্টান্তস্তু সধর্মস‍্য বস্তুনঃ প্রতিবিম্বনম্”।

অর্থাৎ দুটি স্বতন্ত্র বাক‍্যের মধ্যে উল্লেখিত সাধারণ ধর্মদ্বয়ের সাদৃশ্য তাৎপর্যের দ্বারা প্রতীয়মান হলে দৃষ্টান্ত অলংকার হয়।

প্রতিবস্তুপমা অলংকারের লক্ষণ হল-


” প্রতিবস্তুপমা সা স‍্যাদ্ বাক‍্যয়োর্গম‍্য সাম‍্যয়োঃ।
একোঅপি ধর্মঃ সামান‍্যঃ যত্র নির্দিশ‍্যতে পৃথক্।”


অর্থাৎ, উপমান ও উপমেয়রূপ দুটি বাক্যের মধ্যে বিদ্যমান একই সাধারণ ধর্ম যদি অনুমান গম‍্য হয় এবং সেই সাধারনধর্মটি অর্থতঃ অভিন্ন হয়েও যদি পৃথক পৃথক শব্দ দ্বারা নির্দিষ্ট হয়, তাহলে প্রতিবস্তুপমা অলংকার হয়।

ii) প্রতিবস্তুপমায় বাক্য দ্বয়ের মধ্যে সাধারণধর্ম গুনক্রিয়াদিরূপ, তবুও পুনরুক্তি পরিহারের জন্য এই সাধারণধর্মটি পৃথক শব্দ দ্বারা উল্লেখিত হয়।


কিন্তু দৃষ্টান্তে বাক্যদ্বয়ের মধ্যে সাধারণ ধর্ম এক নয় ভিন্ন প্রকার। তবে এখানে ভিন্ন সাধারণ ধর্ম দ্বয়ের মধ্যে একপ্রকার সাদৃশ‍্য থাকে। এই সাদৃশ্য বাক্যের তাৎপর্য পর্যালোচনার দ্বারা উপলব্ধ হয়।

iii) প্রতিবস্তপমায় কেবল উপমান ও উপমেয়ের মধ‍্যে বিম্ব-প্রতিবিম্বভাব থাকে। কিন্তু দৃষ্টান্ত অলংকারে উপমান, উপমেয় এবং তাদের সাধারনধর্ম সকলের মধ‍্যে বিম্ব-প্রতিবিম্বভাব থাকে।


প্রতিবস্তুপমায় একটিই সাধারনধর্ম দুটি ভিন্ন শব্দে উল্লেখিত হয় মাত্র, তাদের মধ‍্যে বিম্ব-প্রতিবিম্বভাব থাকে না।

iv) সাধর্ম‍্যে ও বৈধর্ম‍্যে উভয়প্রকারে দৃষ্টান্ত অলংকার হতে পারে, কিন্তু প্রতিবস্তুপমায় বৈধর্ম‍্য অনুপস্থিত।

কতকগুলি অলংকার সম্পর্কে আলোচনা করা হল –

অলংকারের মধ‍্যে পার্থক্য

Leave a Comment