অলংকার কাকে বলে ? অলংকার সম্পর্কে প্রাথমিক ধারণা

সংস্কৃত অলংকার সম্পর্কে প্রাথমিক ধারণা আলোচনা করা হল । অলংকার কাকে বলে ? অলংকার শব্দের অর্থ, অলংকারের প্রকারভেদ আলোচনা করা হয়েছে। শব্দালংকার ও অর্থালংকারের মধ‍্যে পার্থক্য আলোচনা করা হল ।

Table of Contents

সংস্কৃত অলংকার সম্পর্কে প্রাথমিক ধারণা

অলংকার কাকে বলে

উত্তর – অলংকার  শব্দের ব্যুৎপত্তিগত অর্থ হল- অলম্-√কৃ+ঘঞ্ প্রত্যয় যোগে অলংকার শব্দটির নিষ্পন্ন হয়েছে। এর ব্যুৎপত্তিগত অর্থ হল-যার দ্বারা কাব্যশরীর অলংকৃত করা হয়, তাকে অলংকার বলে।

অলঙ্কার শব্দের বুৎপত্তিগত অর্থ কী?

উ:- অলম্ – √কৃ+ ঘঞ্ প্রত‍্যয় যোগে অলঙ্কার শব্দটির নিষ্পন্ন হয়েছে। এর বুৎপত্তিগত অর্থ হল যার দ্বারা কাব‍্যশরীর অলঙ্কৃত করা হয়, তাকে অলঙ্কার বলে।

কাব‍্যশরীর কী?

উ:- শব্দ ও অর্থকে কাব‍্যশরীর বলে।

অলংকার শব্দের অর্থ কি?

অলংকার  শব্দের অর্থ হল- সৌন্দর্য্য বা যা ভূষিত করে।

কাব‍্যের অলঙ্কার স্থির না অস্থির ধর্ম?

কাব‍্যের অলঙ্কার অস্থির ধর্ম।কারণ, অলঙ্কার সমূহ কাব‍্যে অস্থায়ী বা অনিত‍্য। এগুলি কাব‍্যে গুন প্রভৃতির মতো আবশ‍্যিক হয় না।

অলংকারের প্রকারভেদ

অলংকার হল-২ প্রকার।যথা- শব্দালংকার ও অর্থালংকার

শব্দালঙ্কার কাকে বলে? উদাহরণ দাও।

যে অলংকার আশ্রয়ে সৃষ্ট ও শব্দের উপর নির্ভরশীল ,তাকে শব্দালংকার বলে।উদা:- অনুপ্রাস, যমক প্রভৃতি

অর্থালঙ্কার কাকে বলে? উদাহরণ দাও।

যে অলংকার অর্থের আশ্রয়ে সৃষ্ট ও অর্থের উপর নির্ভরশীল ,তাকে অর্থালংকার বলে।উদা:- দীপক,রূপক,উপমা প্রভৃতি।

শব্দালংকার ও অর্থালংকারের মধ‍্যে পার্থক্য

  • i) শব্দালঙ্কার শব্দের প্রাধান‍্য থাকে। কিন্তু অর্থালঙ্কার অর্থের প্রাধান‍্য থাকে।
  • ii) শব্দালঙ্কার শব্দের পরিবৃত্তিসহ, কিন্তু অর্থালঙ্কার অর্থের পরিবৃত্তিসহ।
শব্দালংকার অর্থালংকার
শব্দালংকার শব্দের আশ্রয়ে সৃষ্ট।অর্থালংকার অর্থের আশ্রয়ে সৃষ্ট।
শব্দালংকার শব্দের উপর নির্ভর করে।অর্থালংকার অর্থের উপর নির্ভর করে।
শব্দালংকার শব্দের পরিবৃত্তিসহ। অর্থালংকার অর্থের পরিবৃত্তিসহ।
শব্দালংকারে শব্দের প্রাধান‍্য থাকে।iv. অর্থালংকারে অর্থের প্রাধান‍্য থাকে।
শব্দালংকারের উদাহরণ হল-
যেমন- অনুপ্রাস,যমক প্রভৃতি।
অর্থালংকারের উদাহরণ হল-
যেমন- উপমা, রূপক, দীপক প্রভৃতি।
শব্দালংকার ও অর্থালংকারের মধ‍্যে পার্থক্য

অলংকার সম্পর্কে প্রাথমিক ধারণা

উপমান

অলঙ্কার শাস্ত্রে উপমান হল যার সাথে বর্ণনীয় পদার্থের সাদৃশ‍্য দেখানো হয়।
যার সাথে তুলনা করা হয়। অর্থাৎ অপ্রকৃত পদার্থ হল উপমান।
উদাহরণ:- চাঁদের মতো মুখ।

উপমেয়

অলঙ্কারশাস্ত্রে উপমেয় হল অন‍্য কোনো পদার্থের সঙ্গে যে বর্ণনীয় পদার্থের সাদৃশ‍্য দেখানো হয়।
যাকে বর্ণনা করা হয়। অর্থাৎ প্রকৃত পদার্থ হল উপমেয়।
উদা:- চাঁদের মতো মুখ।

সাধারন ধর্ম

যে ধর্ম উপমান ও উপমেয়ের মধ‍্যেবিদ‍্যমান থাকে, তাকে সাধারন ধর্ম বলে।
উদা:- আকন্দ ফুলের মতো শুভ্র বস্ত্র।
উপমান সাধারন উপমেয়

সাদৃশ‍্যবাচকশব্দ

যে সকল শব্দরাশি ব‍্যবহার করে উপমান ও উপমেয়ের তুলনা করা হয়, তাদের সাদৃশ‍্যবাচক শব্দ বলে।
উদা:- মতো (ইব)।


সাহিত্যদর্পণ ও অলংকার

সাহিত্যদর্পণ কার লেখা?

উ:- সাহিত‍্যদর্পন আচার্য বিশ্বনাথ কবিরাজের রচনা।

সাহিত্যদর্পণ গ্রন্থের নামটি বিশ্লেষন কর।

উ:- সাহিত‍্যস‍্য দর্পণম্- সাহিত‍্যদর্পণম্। (সাহিত‍্যের দর্পন বা আয়না)

বিশ্বনাথের মতে, অলঙ্কার কাকে বলে?

উ:- কাব‍্যদেহের যে সমস্ত উপাদান উপস্থিত থাকলে কাব্যের সৌন্দর্য সৃষ্টি করে, কাব্য পাঠের প্রতি পাঠকের সুহৃদয় মনকে আকৃষ্ট করে এবং রসের উৎকর্ষ প্রেরণ করে, তাকে অলঙ্কার বলে।

সাহিত‍্যদর্পন গ্রন্থের আনুমানিক রচনাকাল কত?

উ:- খ্রীস্টিয় চতুর্দশ শতক।

সাহিত‍্যদর্পন গ্রন্থে কতগুলি পরিচ্ছেদ আছে? সময়কাল কত?

দশটি পরিচ্ছেদ আছে।
বিশ্বনাথ কবিরাজ চতুর্দশ শতাব্দীর আলংকারিক।

বিশ্বনাথের মতে, অলঙ্কার কাব‍্যের স্থির না অস্থির ধর্ম?

উ:- বিশ্বনাথের মতে, অলঙ্কার কাব‍্যের অস্থিরধর্ম।

সাহিত‍্যদর্পন গ্রন্থের আলোচ‍্য বিষয়বস্তু কী?কোন্ পরিচ্ছেদে অলঙ্কারের আলোচনা আছে?

উ:- সাহিত‍্যদর্পন গ্রন্থের আলোচ‍্য বিষয়বস্তু হল কাব‍্যতত্ত্ব।
সাহিত‍্যদর্পন -এ দশম পরিচ্ছেদে অলঙ্কার -এর আলোচনা আছে।

কাব‍্যের অলঙ্কার মনুষ‍্য শরীরের কীসের সঙ্গে তুলনীয়?

উ:- কাব‍্যের অলঙ্কার মনুষ‍্য শরীরের গহনার সঙ্গে তুলনীয়।

কোন অলঙ্কার বাচ‍্যসাদৃশ‍্য দেখা যায়?

উ:- উপমা অলঙ্কার

২০) একটি পদের /কর্তার সাথে অনেক ক্রিয়ার সাথে সম্বন্ধ হলে কোন্ অলঙ্কার হয়?
উ:- দীপক অলঙ্কার

২১) প্রকৃতস‍্য পরাত্মনা- এখানে প্রকৃত ও পরাত্মনা পদদুটির অর্থ কী?
উ:- প্রকৃত পদটির অর্থ উপমেয় এবং পরাত্মনা পদটির অর্থ হল উপমান।

২২) বিম্বপ্রতিবিম্বভাব কোন্ অলঙ্কারে থাকে?
উ:- নিদর্শনা অলঙ্কারে

২৩) কোন্ অলঙ্কারে একটি পা একাধিক অর্থে ব‍্যবহৃত হয়?
উ:- শ্লেষ অলঙ্কারে

২৪) উপমান ও উপমেয়কে অভেদ প্রতীতি কোন অলঙ্কারে হয়?
উ:- রূপক অলঙ্কার

২৫) চারটি সাদৃশ‍্যমূলক অলঙ্কারের নাম কি?
উ:-উপমা, রূপক, নিদর্শনা, দৃষ্টান্ত, সমাসোক্তি অলঙ্কার

২৬) বাচ‍্যসাদৃশ‍্য পদটি অলঙ্কার শাস্ত্রে কি অর্থে ব‍্যবহৃত হয়?
উ:- বিরুদ্ধধর্মের উল্লেখ না করে ইব, সদৃশ প্রভৃতি পদের দ্বারা দুটি পদার্থের বাচ‍্যসাদৃশ‍্য অর্থে ব‍্যবহৃত হয়।

২৭) শ্লেষ অলঙ্কার কী?
উ:- যে অলঙ্কারে একটি পদের দ্বারা একাধিক অর্থ লক্ষ‍্য করা যায়, তাকে শ্লেষ অলঙ্কার বলে।

২৮) সমাসোক্তি অলঙ্কারের তাৎপর্য লিখ।
উ:- সমাসোক্তি অলঙ্কারের তাৎপর্য হল এই অলঙ্কারে উপমেয়ের উপর উপমানের ব‍্যবহারের সমারূপ ঘটে।

২৯) দীপক অলঙ্কারের নামকরনের তাৎপর্য লিখ?
উ:- দীপের মতো বস্তুকে প্রকাশিত করে বলে, এই অলঙ্কারের নাম দীপক হয়েছে।

৩০) উৎপ্রেক্ষা অলঙ্কারের একটি বৈশিষ্ট‍্য লিখ?
উ:- যে অলঙ্কারে উপমেয়কে উপমান বলে প্রকৃট সংশয় প্রকাশিত হয়ে কাব‍্য প্রতিভার চমৎকারিত্ব সৃষ্টি করে, তাকে উৎপ্রেক্ষা অলঙ্কার বলে।
এই অলঙ্কারের একটি প্রধান বৈশিষ্ট‍্য হল সম্ভাবনা।

৩১) কোন্ অলঙ্কারে বর্ণনীয় বস্তুকে অন‍্য বস্তুর ব‍্যবহার আরোপিত হয়?
উ:- সমাসোক্তি অলঙ্কারে।

৩২) অর্থান্তরন‍্যাস অলঙ্কারের প্রধান বৈশিষ্ট‍্য কী?
উ:- সমর্থ-সমর্থকভাব – অর্থান্তরন‍্যাস অলঙ্কারের প্রধান বৈশিষ্ট‍্য।

৩৩) তুল‍্যযোগিতা অলঙ্কারে কাদের একধর্মগত সম্বন্ধ আছে?
উ:- একাধিক প্রস্তুত বা একাধিক অপ্রস্তুতের একধর্মগত সম্বন্ধ আছে।

৩৪) দীপক শব্দের বুৎপত্তিগত অর্থ কী?
উ:- ‘অপ্রস্তুতমপি পদার্থং বুদ্ধাববভাসয়তীতি’।

৩৫) নিদর্শনা শব্দের বুৎপত্তিগত অর্থ কী?
উ:- নি-√দৃশ্ + যু প্রত‍্যয় (স্ত্রীলিঙ্গ) = নিদর্শনা।এর অর্থ নিশ্চিতরূপে বিম্বপ্রতিবিম্বভাব বা উপমান উপমেয় ভাব পরিলক্ষিত হয়।

৩৬) দৃষ্টান্ত অলঙ্কারের দুটি বৈশিষ্ট‍্য আলোচনা কর।
উ:- দৃষ্টান্ত অলঙ্কারের দুটি বৈশিষ্ট‍্য নিম্নরূপ-
i) দৃষ্টান্ত অলঙ্কারের বাক‍্যদ্বয়ের অলঙ্কার। অর্থাৎ এই অলঙ্কারের দুটি বাক‍্য থাকে।
ii) দৃষ্টান্ত অলঙ্কারে প্রথমে বাক‍্য অর্থ লাভ করে, তারপর ‘বিম্বপ্রতিবিম্বভাব’ লক্ষ‍্য করা যায়।

৩৭) ‘নিরপহ্নবে’ পদটি কোন্ অলঙ্কারে ব‍্যবহৃত হয়? এর অর্থ কী?
উ:- নিরপহ্নবে পদটি রূপক অলঙ্কারে ব‍্যবহৃত হয়েছিল।
নিরপহ্নবে কথাটির অর্থ অপহ্নব বর্জিত বা নিষেধশূন‍্য উপমেয় অর্থাৎ উপমেয়কে নিষেধ না করে উপমানের অভেদ প্রতীতি হয়। এখানে নিরপহ্নবে পদটি অপহ্নুতি অলঙ্কার থেকে রূপক অলঙ্কারকে পূথক করা হয়েছে।

৩৮) “ব‍্যবহারসমারোপঃ প্রস্তুতেঅন‍্যস‍্য বস্তুনঃ ” -এখানে ব‍্যবহারসমারোপঃ বলতে কী বোঝ? এটি কোন্ অলঙ্কারে দেখা যায়?
উ:- এখানে ব‍্যবহারসমারোপঃ বলতে বোঝায় কার্য, লিঙ্গ ও বিশেষণের দ্বারা যদি প্রস্তুত পদার্থের অপ্রস্তুত পদার্থের ব‍্যবহার আরোপ করা হয়, অর্থাৎ প্রস্তুত পদার্থে অপ্রস্তুত পদার্থের ব‍্যবহার আরোপিত হয়।
এটি সমাসোক্তি অলঙ্কারে দেখা যায়।

৪০) অর্থান্তরন‍্যাস শব্দটির অর্থ কী? সংজ্ঞা দাও।
উ:- অর্থান্তর – অন‍্য অর্থ, ন‍্যাস-স্থাপন। অর্থান্তরন‍্যাস শব্দের অর্থ হল- একটি বাক‍্যার্থের সমর্থনে অন‍্য অর্থের স্থাপন।
বিশেষের দ্বারা সামান‍্য এবং সামান‍্যের দ্বারা বিশেষের সমর্থন করা হলে অর্থান্তরন‍্যাস অলঙ্কার হয়।

৪১) কারনের দ্বারা কার্য বা কার্যের দ্বারা কারন সমর্থিত হয় কোন অলঙ্কারে?
উ:- অর্থান্তরন‍্যাস অলঙ্কার।

৪৩) রূপক অলঙ্কারে ‘ বিষয়ে ‘ বলতে কি বোঝ?
উ:- রপক অলঙ্কারে ‘বিষয়ে’ শব্দের অর্থ হল- প্রতিষেধশূণ‍্য বিষয়ে অর্থাৎ উপমেয়ে।

অলঙ্কারগুলির লক্ষণ

১) উপমা অলঙ্কার:-
“সাম‍্যং বাচ‍্যমবৈধর্ম‍্যং বাকৈক‍্য উপমা দ্বয়োঃ।”

২) রূপক অলঙ্কার:-
“রূপকং রূপিতারোপঃ বিষয়ে নিরপহ্নবে।”

৩) পরিণাম অলঙ্কার:-
” বিষয়াত্মতয়ারোপ‍্যে প্রকৃতার্থোপযোগিনি।
পরিণামো ভবেত্তুল‍্যাতুল‍্যাধিকরণো দ্বিধা।।”

৪) উৎপ্রেক্ষা অলঙ্কার:-
” ভবেৎ সম্ভাবনোৎপ্রেক্ষা প্রকৃতস‍্য পরাত্মনা।”

৫) অতিশয়োক্তি অলঙ্কার:-
“সিদ্ধত্বেঅধ‍্যবসায়স‍্যাতিশয়োক্তির্নিগদ‍্যতে।”

৬) তুল‍্যযোগিতা অলঙ্কার:-
“পদার্থানাং প্রস্তুতানামন‍্যেষাং বা যদা ভবেৎ।
একধর্মাভিসম্বন্ধঃ স‍্যাত্তদা তুল‍্যযোগিতা।।”

৭) দীপক অলঙ্কার:-
” অপ্রস্তুতপ্রস্তুতয়োর্দীপকন্তু নিগদ‍্যতে।
অথ কারকমেকং স‍্যাদনেকাসু ক্রিয়াসু চেৎ।।”

৮) দৃষ্টান্ত অলঙ্কার:-
” দৃষ্টান্তসু সধর্মস‍্য বস্তুনঃ প্রতিবিম্বনম্।

৯) নিদর্শনা অলঙ্কার:-
” সম্ভবন্ বস্তুসম্বন্ধোঅসম্ভবন্ বাপি কুত্রচিৎ।
যত্র বিম্বানুবিম্বত্বং বোধয়েৎ সা নিদর্শনা।।”

১০) সমাসোক্তি অলঙ্কার:-
” সমাসোক্তিঃ সমৈর্যত্র কার্য‍্য-লিঙ্গ- বিশেষণৈঃ
ব‍্যবহারসমারোপঃ প্রস্তুতেঅন‍্যস‍্য বস্তুনঃ।”

১১) শ্লেষ অলঙ্কার :-
” শ্লিষ্টৈঃ পদৈরনেকার্থাভিধানে শ্লেষ ইষ‍্যতেহ
বর্ণ-প্রত‍্যয়- লিঙ্গানাং প্রকৃত‍্যোঃ পদয়োরপি।
শ্লেষাদ্বিভক্তি-বচন-ভাষানামষ্টধা চ সঃ।।”

অলংকার কি ? এর উত্তর জানার পর কতকগুলি অলংকারের আলোচনা করা হয়েছে। সেগুলি দেখতে নিচে ক্লিক করুন।

কতকগুলি অলংকার সম্পর্কে আলোচনা করা হল –

অলংকারের মধ‍্যে পার্থক্য

অলংকার সম্পর্কে সাধারণ জিজ্ঞাস্য (FAQ)

অলংকার কাকে বলে ?

যার দ্বারা কাব্যশরীর অলংকৃত করা হয়, তাকে অলংকার বলে।

অলংকার শব্দের অর্থ কি ?

অলংকার  শব্দের অর্থ সৌন্দর্য্য ।

কাব‍্যের অলঙ্কার স্থির না অস্থির ধর্ম?

কাব‍্যের অলঙ্কার অস্থির ধর্ম।কারণ, অলঙ্কার সমূহ কাব‍্যে অস্থায়ী বা অনিত‍্য। এগুলি কাব‍্যে গুন প্রভৃতির মতো আবশ‍্যিক হয় না।

Leave a Comment