সমাসের পদসাধন

সমাসের পদসাধন

Table of Contents

সমাসের পদসাধন

১) যথাশক্তি- সমাসের পদসাধন

শক্তিম্ অনতিক্রম‍্য- -এইরূপ অর্থে শক্তিম্ এই সমর্থ সুবন্ত পদের সাথে অনতিক্রম‍্য অর্থের দ‍্যেতক যথা এই অব‍্যয়ের অব‍্যয়ীভাবঃ সূত্রের অধিকারে পঠিত ‘অব‍্যয়ং বিভক্তি…’ সূত্রে অব‍্যয়ীভাব সমাস হয়েছে। শক্তিম্ যথা।

কৃত্তদ্ধিতসমাসাশ্চ – এই সূত্রানুসারে সমাসের প্রাতিপদিক সংজ্ঞা হয়। এবং সুপো ধাতুপ্রাতিপদিকয়োঃ- সূত্রে প্রাতিপদিকের অবয়বীভূত বিভক্তির লোপ হয়। শক্তিম্ যথা>শক্তিযথা।

প্রথমানির্দিষ্টং সমাস উপসর্জনম্- এই সূত্রানুসারে সমাস বিধায়ক সূত্রের ‘অব‍্যয়ং….’ পদটি উপসর্জন সংজ্ঞক হয়।
উপসর্জনং পূর্বম্ – এই সূত্রানুসারে উপসর্জন সংজ্ঞক ‘যথা’ অব‍্যয়টির পূর্বনিপাত হয়। শক্তিযথা > যথাশক্তি।
অব‍্যয়ীভাবশ্চ সূত্রে অব‍্যয়ীভাব সমাস নিষ্পন্ন পদ নপুংসক লিঙ্গ হয়। সুতরাং যথাশক্তি এইরূপ পদ সিদ্ধ হয়।

২) উপকৃষ্ণম্- সমাসের পদসাধন

কৃষ্ণস‍্য সমীপম্- এইরূপ লৌকিক বিগ্রহ ও কৃষ্ণ -ঙস্, সমীপ-সু এইরূপ অলৌকিক বিগ্রহে ‘অব‍্যয়ীভাব’ এই অধিকার সূত্রের অন্তর্গত’ অব‍্যয়ং বিভক্তি…. ‘ এই সূত্রের দ্বারা সমীপ‍্যর্থের দ‍্যোতক উপ এই অব‍্যয়ের সাথে কৃষ্ণস‍্য এই সমর্থ সুবন্ত পদের অব‍্যয়ীভাব সমাস হয়েছে। কৃষ্ণস‍্য উপ।

কৃত্তদ্ধিত সমাসাশ্চ- এই সূত্রানুসারে সমাসের প্রাতিপদিক সংজ্ঞা হয়। এবং সুপোধাতুপ্রাতিপদিকয়োঃ – সূত্রে সুপ্ বিভক্তির লোপহয়। কৃষ্ণ উপ।

প্রথমা নির্দিষ্টং সমাস উপসর্জনম্ – এই সূত্রানুসারে উপ এই সমীপ‍্যর্থের দ‍্যোতক অব‍্যয়ের উপসর্জন সংজ্ঞা হয়।
উপসর্জনং পূর্বম্- এই সূত্রে উপসর্জন সংজ্ঞক উপ অব‍্যয়টির পূর্ব নিপাত হয়। কৃষ্ণ উপ > উপকৃষ্ণ।

নাব‍্যয়ীভাবাদতোঅমত্বপঞ্চম‍্যাঃ- এই সূত্রে অ-কারান্ত অব‍্যয়ীভাবের পর অম্ এর আদেশ হয়। ফলে উপকৃষ্ণ-অম্।
অমিপূর্বঃ -সূত্রে পূর্বরূপ একাদেশে উপকৃষ্ণম্ পদটি সিদ্ধ হয়।
অব‍্যয়ীভাবশ্চ – এই সূত্রে অব‍্যয়ীভাব সমাস নিষ্পন্ন শব্দ ক্লীবলিঙ্গ হয়।

৩) পরোক্ষম্-সমাসের পদসাধন

অক্ষ্ণঃ পরম্ – এইরূপ লৌকিক বিগ্রহে এবং অক্ষি -ঙস্, পর-সু এইরূপ অলৌকিক বিগ্রহে প্রতিপরসমনুভ‍্যোঅক্ষ্ণঃ, এই জ্ঞাপক সমাসান্ত গণ সূত্রের সামর্থ‍্যবশত অক্ষ্ণঃ এই সমর্থ সুবন্তপদের সাথে পরম্ এই পদের অব‍্যয়ীভাব সমাস হয়েছে।

কৃত্তদ্ধিত সমাসাশ্চ- এই সূত্রানুসারে সমাসবদ্ধ পদের প্রাতিপদিক সংজ্ঞা হয় এবং সুপোধাতু প্রাতিপদিকয়োঃ সূত্রে প্রাতিপদিকের বিভক্তির লোপ হয়। অক্ষিপর।

পরোক্ষে লিট্ – এই পাণিনী সূত্রে যেহেতু পরোক্ষ পদটি উক্ত হয়েছে তাই এখানে পর শব্দের পূর্ব নিপাত এবং আ কার স্থানে ও কারের প্রয়োগ শুদ্ধ। অতএব, পরোক্ষি এইরূপ অবস্থায় যস‍্যেতি চ সূত্রে ই কারের ইত সংজ্ঞা হয়। এবং তস‍্য লোপ সূত্রানুসারে উভয়ের লোপ হয়। এবং প্রতিপরসমনুভ‍্যোঅক্ষ্ণঃ – সমাসান্ত চৈ প্রত‍্যয় হয়। ফলে- পর অক্ষি > পরোক্ষি > পরোক্ষ টচ্ পরোক্ষ অব‍্যয়ীভাব হওয়ার কারণে ‘ নাব‍্যয়ীভাবাদতোঅমত্বপঞ্চম‍্যঃ- সূত্রে অম্ আদেশ হয়। পরোক্ষ- অম্।

অমি পূর্বঃ সূত্রে পূর্বরূপ একাদেশে পরোক্ষম্ পদটি সিদ্ধ হয়।

৪) প্রত‍্যক্ষম্ -সমাসের পদসাধন

অক্ষ্ণঃ আভিমুখ‍্যম্- এইরূপ লৌকিক বিগ্রহে অব‍্যয়ীভাবঃ ও বিভাষা সূত্রের অধিকারে পঠিত ‘লক্ষণেনাভি প্রতী আভিমুখ‍্যে ‘ – সূত্রানুসারে অভিমুখে গমন এর অর্থে তার দ‍্যোতক অব‍্যয় প্রতি এই অব‍্যয়ের সাথে অক্ষ্ণঃ এই সমর্থ সুবন্ত পদের অস্বপদ বিগ্রহ নিত‍্য অব‍্যয়ীভাব সমাস হয়েছে। অক্ষ্ণঃ প্রতি।

কৃত্তদ্ধিত সমাসাশ্চ- সূত্রানুসারে সমস্ত পদের প্রাতিপদিক সংজ্ঞা হয় এবং সুপো ধাতু প্রাতিপদিকয়োঃ সূত্রে প্রাতিপদিকের অবয়বীভূত বিভক্তির লোপ হয়। অক্ষিপ্রতি।

প্রথমা নির্দিষ্টং সমাস উপসর্জনম্- এই সূত্রানুসারে সমাস বিধায়ক সূত্রে প্রতি অব‍্যয়টি প্রথমান্ত হওয়ায় এর উপসর্জন সংজ্ঞা হয়। এবং উপসর্জনং পূর্বম্। সূত্রানুসারে প্রতি অব‍্যয়ের পূর্ব নিপাত হয়। অক্ষি প্রতি > প্রতি অক্ষি।

‘সংহিতৈক পদে নিত‍্যা নিত‍্যা….’ এই কারিকা অনুসারে সমাসের সন্ধি নিত‍্য হওয়ায় এখানে ইকোযণচি সূত্রে ই কার স্থানে য কার হয়। প্রতি অক্ষি > প্রত‍্যক্ষি

অব‍্যয়ীভাবশ্চ সূত্রে অব‍্যয়ীভাব সমাস নিষ্পন্ন শব্দ ক্লীবলিঙ্গ হয়।

প্রতিপরসমনুভ‍্যোঅক্ষ্ণঃ – এই সূত্র অনুসারে প্রতি শব্দের পর অক্ষি শব্দ থাকায় সমাসান্ত টচ্ প্রত‍্যয় হয়। প্রত‍্যক্ষি – টচ্।

হলন্ত‍্যম্ সূত্রে চ্ কারের ইত সংজ্ঞা এবং চটূ সূত্রে ট্ কারের ইত সংজ্ঞা প্রাপ্ত হয়। এবং তস‍্য লোপঃ সূত্রে উভয়ের লোপ হয়। লোপ সংজ্ঞা বিধায়ক সূত্র হল ‘অদর্শনং লোপঃ।
ফলে – প্রত‍্যক্ষ- টচ্ > প্রত‍্যক্ষি – অ।

যস‍্যেতি চ সূত্রে অন্ত ই কারের লোপ হয়। প্রত‍্যক্ষি – অ > প্রত‍্যক্ষ – অ > প্রত‍্যক্ষ।
নাব‍্যয়ীভাবাদতোঅমত্বপঞ্চম‍্যাঃ – সূত্রানুসারে অম্ আদেশ হয়। প্র‍ত‍্যক্ষ- অম্।
অমি পূর্বঃ সূত্রানুসারে পূর্বরূপ একাদেশে প্রত‍্যক্ষম্ পদটি সিদ্ধ হয়।

৫) রাজপুত্রঃ- সমাসের পদসাধন

রাজ্ঞঃ পুত্রঃ – এইরূপ লৌকিক বিগ্রহে রাজন্ -ঙস্, পুত্র -সু এইরূপ অলৌকিক বিগ্রহে তৎপুরুষঃ এই সূত্রের অধিকারে ষষ্ঠী এই সূত্রে ষষ্ঠন্ত‍্য রাজ্ঞঃ পদের সাথে সমর্থ সুবন্ত পদ পুত্রঃ এর ষষ্ঠী তৎপুরুষ সমাস হয়েছে।

কৃত্তদ্ধিতসমাসশ্চ – এই সূত্রানুসারে সমস্ত পদের প্রাতিপদিক সংজ্ঞা হয় এবং সুপোধাতুপ্রাতিপদিক সংজ্ঞা হয় এবং সুপোধধাতুপ্রাতিপদিকয়োঃ – এই সূত্রানুসারে প্রাতিপদিকের অবয়বীভূত বিভক্তির লোপ হয়। রাজপুত্র।

প্রথমা নির্দিষ্টং সমাস উপসর্জনম্ এই সমাস বিধায়ক সূত্রে ষষ্ঠী এই প্রথমা বিভক্তি যুক্ত পদ রাজ্ঞ পদকে নির্দেশ করায় তার উপসর্জন সংজ্ঞা হয়।

উপসর্জনম্ পূর্বম্ সূত্রে উপসর্জনের পূর্বনিপাত হয়। রাজপুত্র।

অতপর প্রথমার একবচন বিবক্ষায় রাজপুত্র – সু এইরূপ হয়।

উপদেশেঅনুনাসিকইৎ- এই সূত্রানুসারে উ কারের ই‍ৎ কারের সংজ্ঞা হয়। এবং তস‍্য লোপঃ সূত্রে এর লোপ হয়। রাজপুত্র-স্।

সসজুষোরুঃ- সূত্রে স্ কার স্থানে রূ হয়।

উপদেশেঅজানুনাসিক ইৎ- সূত্রে উ কারের ইৎ সংজ্ঞা হয়। এবং তস‍্য লোপঃ সূত্রে এর লোপ হয়। রাজপুত্র- র্।
খবরসানয়োর্বিসজংনীয় – সূত্রানুসারে র্ এর পরিবর্তে বিসর্গ (ঃ) এর আগম হয়ে রাজপুত্রঃ পদটি সিদ্ধ হয়।

৬) রাজপথঃ- সমাসের পদসাধন

পথাং রাজা এইরূপ লৌকিক বিগ্রহে এবং পথিন্ – আম্, রাজন্- সু এইরূপ অলৌকিক বিগ্রহে ত‍ৎপুরুষঃ এই অধিকার সূত্রে পঠিত রাজদণ্ডাদিষুপরম্ সূত্রানুসারে ষষ্ঠ‍্যন্ত পদের সঙ্গে সমর্থ সুবন্ত পদের তৎপুরুষ সমাস হয়েছে।

কৃত্তদ্ধিত সমাসাশ্চ সূত্রানুসারে সমস্ত পদের প্রাতিপদিক সংজ্ঞা হয় এবং সুপোধাতুপ্রাতিপদিকয়োঃ এই সূত্রানুসারে প্রাতিপদিকের অবয়বীভূত বিভক্তির লোপ্ হয়।

এরপর উপসর্জনং পূর্বম্ এর অপবাদ সূত্র রাজদণ্ডাদিষুপরম্ সূত্রে পথিন্ শব্দের পর নিপাতে রাজন্ + পথিন্ হয়।
এরপর নস্তদ্ধিতে সূত্রে পথিন্ শব্দের টি ভাগের লোপ হয়ে রাজন্ + পথ হল এবং ন পদান্তদ্বির্বচন ইত‍্যাদি সূত্রে রাজন্ শব্দের ন কার লোপ হয়ে রাজ + পথ এবং প্রথমার একবচনে রাজপথঃ শব্দটি উৎপত্তি হয়েছে।

৭) অর্থগৌরবম্- সমাসের পদসাধন

অর্থস‍্য গৌরবম্ এইরূপ লৌকিক বিগ্রহে তৎপুরুষঃ এই অধিকার সূত্রে পঠিত অনিত‍্যোঅয়ং গুনেন নিষেধঃ- এই সূত্রানুসারে ষষ্ঠ‍্যন্ত পদের সঙ্গে সমর্থ সুবন্ত পদের ষষ্ঠী ত‍ৎপুরুষ সমাস হয়েছে।

কৃত্তদ্ধিত সমাসশ্চ সূত্রানুসারে সমস্ত পদের প্রাতিপদিক সংজ্ঞা হয় এবং সুপোধাতু প্রাতিপদিকয়োঃ সূত্রানুসারে প্রাতিপদিকের বিভক্তির লোপ হয়। অর্থগৌরব।

প্রথমা নির্দিষ্ট সমাস উপসর্জনম্ এই সূত্রানুসারে সমাস বিধায়ক সূত্রে ষষ্ঠ‍্যন্ত পদটি প্রথমান্ত হওয়ায় উপসর্জন সংজ্ঞা হয়। এবং উপসর্জনং পূর্বম্ – এই সূত্রানুসারে এর পূর্ব নিপাত হয়। অর্থগৌরব।

এইরূপ অবস্থার নপুংসক এবং এক বচনান্ত হওয়ায় অর্থগৌরবম্ পদটি সাধিত হয়।

৮) অর্ধপিল্লবী-সমাসের পদসাধন

অর্ধং পিপ্পল‍্যাঃ – এইরূপ লৌকিক বিগ্রহে তৎপুরুষঃ এই অধিকারে পঠিত ‘অর্ধং নপুংসকম্ সূত্রে তৎপুরুষ সমাস হয়েছে।

কৃত্তদ্ধিত সমাসশ্চ
সুপোধাতু প্রাতিপদিকয়োঃ,
‘পরবল্লিঙ্গং দ্বন্দ্বতৎপুরুষয়োঃ’ সূত্রানুসারে দ্বন্দ্ব ও তৎপুরুষ সমাসে পরপদের ন‍্যায় লিঙ্গ হওয়ায় অর্ধপিপ্পলী পদটি সিদ্ধ হয়েছে।

৯) পঞ্চবটী-সমাসের পদসাধন

পঞ্চানাং বটানাং সমাহারঃ -এইরূপ লৌকিক বিগ্রহে এবং পঞ্চ-আম্, বট- আম্ এইরূপ অলৌকিক বিগ্রহে ‘তদ্ধিততার্থোত্তরপদসমাহারে চ- এই সূত্রানুসারে সমাসে ‘সংখ‍্যা পূর্বো দ্বিগুঃ ‘- সূত্রানুসারে সমাসে ‘সংখ‍্যা পূর্বো দ্বিগুঃ- সূত্রানুসারে দ্বিগু সমাস হয়েছে।

কৃত্তদ্ধিত সমাসাশ্চ – সূত্রানুসারে সমস্ত পদের প্রাতিপদিক সংজ্ঞা হয়। এবং সুপোধাতু প্রাতিপদিকয়োঃ – সূত্রানুসারে প্রাতিপদিকের অবয়বীভূত বিভক্তি লোপ হয়। পঞ্চবট।

এরপর অকারান্তোত্তর পদো দ্বিগুঃ স্ত্রিয়া মিষ্টঃ সূত্রে ঙীপ্ = পঞ্চবটী + স্ত্রী লিঙ্গে প্রথমার একবচনে সু হয়ে পঞ্চবটী পদটি সিদ্ধ হয়েছে।

১০) মিত্রাবরুণৌ- সমাসের পদসাধন

মিত্রাশ্চ বরুণশ্চ – এই লৌকিক বিগ্রহে চার্থে দ্বন্দ্বঃ- সূত্রানুসারে ইতরেতর যোগ দ্বন্দ্ব সমাসে, সমাস হেতু প্রাতিপদিক হওয়ায় সুপোধাতুপ্রাতিপদিকয়োঃ সূত্রানুসারে সুপ্ বিভক্তি লোপে অল্পাচতরম্ সূত্রানুসারে মিত্র শব্দের পূর্ব প্রয়োগে ‘দেবতাদ্বন্দ্বে চ’ সূত্রানুসারে মিত্রান্ শব্দের আদেশ হওয়ায় ‘ ন লোপপ্রাতিপদিকান্তস‍্য ‘ সূত্রানুসারে ন কার লোপে প্রথমার দ্বিবচনে এবং ঔ কার বিভক্তি যোগে মিত্রাবরুনৌ রূপটি গঠিত হয়েছে।

১১) দ্বিত্রা-সমাসের পদসাধন

দ্বৌ বা ত্রয়ো বা- এইরূপ লৌকিক বিগ্রহে বহুব্রীহি এই অধিকারে পঠিত ‘সংখ‍্যায়াঅব‍্যয়াসন্নাদূরাধিকসংখ‍্যাঃ ‘- সূত্রানুসারে উভয়ই সংখ‍্যাবাচক শব্দ হওয়ায় বহুব্রীহি সমাস হয়েছে।

কৃত্তদ্ধিতসমাসশ্চ সূত্রানুসারে সমস্তপদের প্রাতিপদিক সংজ্ঞা হয় এবং সুপোধাতুপ্রাতিপদিকয়োঃ -সূত্রানুসারে প্রাতিপদিকের অবয়বীভূত বিভক্তির লোপ হয়। পুষ্প ধনুষ্।

এইরূপ অবস্থায় বা সংজ্ঞায়াম্ – সূত্রানুসারে ধনুষঃ অনঙ্ আদেশঃ বিধানে কামদেব অর্থে ধনুষ উত্তর পদের অন্তে অনঙ্ আদেশ করে। অঙ্ এর লোপ অন্ এর অন্তাদেশ করে পুষ্পধনুষ + অন্ অবস্থায় অন্ এর পূর্ববর্তী ষ কারের লোপে পুষ্পধনু + অন্ হয়েছে।

ইকোযনচি এই সন্ধি সূত্রে উ কারের স্থানে যন্ (ব-কার) হয়ে পুষ্পধন্ধন হয়। এবং ঙিচ্চ সূত্রে ঙ কার ই‍ৎ হওয়ায় ন কারের অন্তাদেশ।

হলঙ‍্যাদিলোপে সূত্রে শেষ ন কারের লোপ হয়ে পুষ্পধন্ব এবং সর্বণাম স্থানে – এই সূত্রে পূর্বস্বরের দীর্ঘ আদেশ হয়ে পুষ্পধন্বা পদটি সিদ্ধ হয়।

১২) নীলোৎপলম্- সমাসের পদসাধন

নীলম্ উৎপলম্। এইরূপ লৌকিক বিগ্রহে নীল – সু উৎপল- সু এইরূপ অলৌকিক বিগ্রহে তৎপুরুষঃ এই সূত্রের অধিকারে পঠিত বিশেষণ বিশেষ‍্য বহুলম্ সূত্রে দুটি সমর্থ সুবন্ত পদের তৎপুরুষ সমাস হয়েছে।

কৃত্তদ্ধিতসমাসাশ্চ- এই সূত্রানুসারে সমস্ত পদের প্রাতিপদিক সংজ্ঞা হয়। এবং সুপোধাতুপ্রাতিপদিকয়োঃ সূত্রানুসারে প্রাতিপদিকের অবয়বীভূত বিভক্তির লোপ হয়।

প্রথমা নির্দিষ্টং সমাস উপসর্জনম্ সূত্রে সমাস বিধায়ক সূত্রের বিশেষণম্ পদটি প্রথমান্ত হওয়ায় নীল এর উপসর্জন সংজ্ঞা হয়। এবং উপসর্জনম্ পূর্বম্ সূত্রে এর পূর্ব নিপাত হয়। নীল- উৎপল।

সংহিতৈকপদে নিত‍্যা এই সূত্রানুসারে সমাসে সন্ধি নিত‍্য হওয়ায় এখানে আদগুনঃ সূত্রে ও কার হয়েছে।
নীল উৎপল – নীলো‍ৎপল।

প্রথমার একবচন বিবক্ষায় সুপের উৎপত্তিতে নীলো‍ৎপলম্ পদটি সিদ্ধ হয়।

১৩) মৃগক্ষীরম্- সমাসের পদসাধন

মৃগস‍্য ক্ষীরম্ – এই লৌকিক বিগ্রহে তৎপুরুষঃ – এই সূত্রের অধিকারে ষষ্ঠী এই সূত্রে ষষ্ঠন্ত মৃগস‍্য পদের সাথে সমর্থ সুবন্ত পদ ক্ষীরম্ এর ষষ্ঠী তৎপুরুষ সমাস হয়েছে।

কৃত্তদ্ধিত সমাসাশ্চ এই সূত্রানুসারে সমস্ত পদের প্রাতিপদিক সংজ্ঞা হয়। এবং সুপোধাতু প্রাতিপদিকয়োঃ এই সূত্রানুসারে প্রাতিপদিকের অবয়বীভূত বিভক্তির লোপ হয়। মৃগক্ষীর।

প্রথমা নির্দিষ্টং সমাস উপসর্জনম্ – এই সূত্রানুসারে সমাস বিধায়ক সূত্রে ষষ্ঠী এই প্রথমা বিভক্তি যুক্তপদ মৃগস‍্য পদকে নির্দেশ করায় এর উপসর্জন সংজ্ঞা হয়। উপসর্জনম্ পূর্বম্ সূত্রে এর পূর্ব নিপাত হয়। মৃগ-ক্ষীর।
প্রথমার একবচন বিবক্ষায় সুপের উৎপত্তিতে মৃগক্ষীরম্ পদটি সিদ্ধ হয়েছে।

১৪) অহিনকুলম্-সমাসের পদসাধন

অহয়শ্চ নকুলাশ্চ- এইরূপ লৌকিক বিগ্রহে অতি-জস্ নকুল জস্ এইরূপ অলৌকিক বিগ্রহে চার্থে দ্বন্দ্ব সূত্রে সমাহার অর্থে যেষাং চ বিরোধঃ শ্বাশ্বতিঃ সূত্রে সমর্থ সুবন্ত পদ দুটির মধ‍্যে সমাহার দ্বন্দ্ব সমাস হয়।

কৃত্তদ্ধিত সমাসশ্চ- এই সূত্রানুসারে সমস্ত পদের প্রাতিপদিক সংজ্ঞা হয়। এবং সুপোধাতুপ্রাতিপদিকয়োঃ এই সূত্রানুসারে প্রাতিপদিকের অবয়বীভূত বিভক্তির লোপ হয়। অহিনকুল।

অল্পাচ্ তরম্ সূত্রে অহি অল্প অচ্ বিশিষ্ট হওয়ায় তার পূর্ব নিপাত হয়েছে। অহিনকুল।
সমাহার দ্বন্দ সমাস নিষ্পন্ন পদ ক্লীবলিঙ্গ হওয়ায় তার প্রথমার একবচন বিবক্ষায় সুপের উৎপত্তিতে অহিনকুলম্ পদটি সিদ্ধ হয়।

১৫) বধূবরম্- সমাসের পদসাধন

বধূশ্চ বরশ্চ- এইরূপ লৌকিক বিগ্রহে বধূ -সু বর- সু এইরূপ অলৌকিকবিগ্রহে চার্থে দ্বন্দ্ব সূত্রে সমাহার অর্থে দ্বন্দ্ব সমাস হয়েছে।

কৃত্তদ্ধিত সমাসাশ্চ – এই সূত্রানুসারে সমস্ত পদের প্রাতিপদিক সংজ্ঞা হয় এবং সুপোধাতুপ্রাতিপদিকয়োঃ – সূত্রে প্রাতিপদিকের অবয়বীভূত বিভক্তির লোপ হয়। বধূবর।

সমাহার দ্বন্দ্ব সমাস নিষ্পন্ন পদ ক্লীবলিঙ্গ হওয়ায় তার প্রথমার একবচন বিবক্ষায় সুপের উৎপত্তিতে বধূবরম্ পদটি সিদ্ধ হয়।

১৬) পাণিপদম্- সমাসের পদসাধন

পাণী চ পাদৌ চ – এইরূপ লৌকিক বিগ্রহে পাণি – ঔ পাদ -ঔ এইরূপ অলৌকিক বিগ্রহে চার্থে দ্বন্দ্ব সূত্রে সমাহার অর্থে দ্বন্দ্ব সমাস হয়েছে।

কৃত্তদ্ধিত সমাসাশ্চ – এই সূত্রানুসারে সমস্ত পদের প্রাতিপদিক সংজ্ঞা হয় এবং সুপোধাতুপ্রাতিপদিকয়োঃ – সূত্রে প্রাতিপদিকের অবয়বীভূত বিভক্তির লোপ হয়। পাণিপদ।

সমাহার দ্বন্দ্ব সমাস নিষ্পন্ন পদ ক্লীবলিঙ্গ হওয়ায় তার প্রথমার একবচন বিবক্ষায় সুপের উৎপত্তিতে পাণিপদম্ পদটি সিদ্ধ হয়।

১৭) অগ্নীষোমৌ- সমাসের পদসাধন

অগ্নিশ্চ সোমশ্চ- এইরূপ লৌকিক বিগ্রহে অগ্নি- সু, সোম – সু এইরূপ অলৌকিক বিগ্রহে চার্থে দ্বন্দ্ব সূত্রে ইতরেতর অর্থে ইতরেতর দ্বন্দ্ব সমাস হয়েছে।

    কৃত্তদ্ধিত সমাসাশ্চ – এই সূত্রানুসারে সমস্ত পদের প্রাতিপদিক সংজ্ঞা হয় এবং সুপোধাতুপ্রাতিপদিকয়োঃ – সূত্রে প্রাতিপদিকের অবয়বীভূত বিভক্তির লোপ হয়। অগ্নিসোম।

দেবতাদ্বন্দ্বে চ সূত্রে সমাসের পূর্ব পদ দীর্ঘ হওয়ায় অগ্নিসোম হয়।

অগ্নে স্তুত-স্তোম-সোমাঃ এই সূত্রে স, ষ হয়। অগ্নীষোম।

ইতরেতর দ্বন্দ্ব সমাসে প্রথমার দ্বিবচন বিবক্ষায় ঔ বিভক্তির যোগে অগ্নীষোমৌ পদটি সিদ্ধ হয়।

১৮) অপদিশম্- সমাসের পদসাধন

দিশয়োঃ মধ‍্যে – এই রূপ লৌকিক বিগ্রহে অব‍্যয়ং বিভক্তি সমীপ সমৃদ্ধি…… সূত্রানুসারে সপ্তমী বিভক্তি যুক্ত অপ এই অব‍্যয়ের সাথে দিশয়ো এই সমর্থ সুবন্ত পদের অব‍্যয়ীভাব সমাস হয়েছে।

কৃত্তদ্ধিত সমাসাশ্চ – সূত্রানুসারে সমস্ত পদের প্রাতিপদিক সংজ্ঞা হয় এবং সুপোধাতুপ্রাতিপদিকয়োঃ- সূত্রানুসারে প্রাতিপদিকের অবয়বীভূত বিভক্তির লোপ হয়। দিশা অপ।

প্রথমা নির্দিষ্টং সমাস উপসর্জনম্- সূত্রানুসারে সমাস বিধায়ক সূত্রে অব‍্যয়ং পদটি প্রথমান্ত হওয়ায় উপসর্জন সংজ্ঞা হয়। এবং উপসর্জনং পূর্বম্ সূত্রানুসারে এর পূর্ব নিপাত হয়। অপদিশা।

গোস্ত্রিয়োরূপসর্জনস‍্য সূত্রানুসারে দিশা শব্দের অন্তস্বর হ্রস্ব হয়। অপদিশ।

নাব‍্যয়ীভাবাদতোম্ ত্বপঞ্চম‍্যাঃ সূত্রানুসারে অ-কারান্ত অব‍্যয়ীভাবের পর অম্ আদেশ হয়। অপদিশ- অম্।
অমি পূর্বঃ সূত্রানুসারে পূর্বরূপ একাদেশে অপদিশম্ পদটি সিদ্ধ হয়।

১৯) পূর্বকায়- সমাসের পদসাধন

পূর্বং কায়স‍্য – এইরূপ লৌকিক বিগ্রহে তৎপুরুষ সূত্রের অধিকারে পঠিত ‘পূর্বাপরাধরোত্তরমেকদেশিনৈকাধিকরণো’ – সূত্রানুসারে কায় এই ষষ্ঠ‍্যন্ত পদের পূর্ব এই একাংশ বাচক শব্দের সাথে একাদেশী তৎপুরুষ সমাস হয়েছে।

কৃত্তদ্ধিতসমাসাশ্চ সূত্রানুসারে সমস্ত পদের প্রাতিপদিক সংজ্ঞা হয় এবং সুপোধাতু প্রাতিপদিকয়ো সূত্রানুসারে অবয়বীভূত প্রাতিপদিকের বিভক্তি লোপ হয়। পূর্বকায়।

খবরসানয়োবিসর্জনীয় সূত্রানুসারে র এর স্থানে বিসর্গ (ঃ) হয়ে পূর্বকায়ঃ পদটি সিদ্ধ হয়।

২০) দণ্ডাদণ্ডি- সমাসের পদসাধন

দণ্ডৈশ্চ দণ্ডৈশ্চ প্রহৃত‍্য ইদং যুদ্ধং প্রবৃত্তম্ – এইরূপ লৌকিক বিগ্রহে বহুব্রীহিঃ এই অধিকার সূত্রের অন্তর্গত তত্র তেনেদমিতি স্বরূপে – এই সূত্রানুসারে তৃতীয়ান্ত পদদ্বয়ের সাথে বহুব্রীহি সমাস হয়েছে।

কৃত্তদ্ধিতসমাসাশ্চ – সূত্রানুসারে সমস্ত পদের প্রাতিপদিক সংজ্ঞা হয় এবং সুপোধাতুপ্রাতিপদিকয়োঃ- সূত্রানুসারে প্রাতিপদিকের অবয়বীভূত বিভক্তির লোপ হয়। দণ্ডদণ্ড।

অণ‍্যেষামপিদৃশ‍্যতে- সূত্রানুসারে পূর্ব পদান্তের দীর্ঘ আদেশ হয়। দণ্ডাদণ্ড।

এরপর ইচ্ কর্ম ব‍্যতিহারে সূত্রানুসারে ইচ্ এর আদেশ হয় এবং যস‍্যেতি চ সূত্রানুসারে অ-কারের লোপেও হলন্ত‍্যম্ সূত্রে চ-কারের লোপে দণ্ডাদণ্ডি পদটি সিদ্ধ হয়েছে।

সমাসের অন্যান্য পোস্টগুলি

Leave a Comment