সমর্থ পদবিধি-সমাস বিধায়ক সূত্র

সমর্থ পদবিধি- সমাস বিধায়ক ইহা একটি পাণিনীয় সূত্র।

সমর্থ পদবিধি

সমাস বিধায়ক ইহা একটি পাণিনীয় সূত্র। এই সূত্রটি সমাসের উৎপাদঘাত সূত্র বা মুখবন্ধ। সমর্থ শব্দটি এখানে লাক্ষণিক অর্থে গ্রহণীয়। ইহার অর্থ সমর্থাশ্রিত। ইহা পদবিধি শব্দের বিশেষণ। পদবিধি সমর্থ পদসমূহকে আশ্রয় করে হবে। যে সকল শব্দের প্রয়োজন তুল‍্য বা সমান তাহা সমর্থ। যথা- রাজ্ঞঃ পুরুষঃ। এই বাক‍্যে রাজাধীহ পুরুষকে বোঝায়। এই অর্থ বুঝতে হলে রাজন্ ও পুরুষ এই দুই শব্দেরই সমান প্রয়োজন। এই দুই শব্দ পরস্পর অন্বিত না হলে যে কোনো একটি শব্দের দ্বারা উক্তার্থের প্রতীত হয় না।

অতএব সমর্থ শব্দের অর্থ এখানে সাপেক্ষ, সাপেক্ষ পদসমষ্টিই পদ সমন্বয়ে সমর্থ। তাই দীক্ষিত বৃত্তিতে বলেছেন-

‘পদসমৃদ্ধী যো বিধিঃ স সমর্থাশ্রিতো বোধ‍্যঃ।’

যে কোনো পদ সমষ্টিই সমাস হয় না। বিগ্রহস্থ পদাবলীর মধ‍্যে যদি সামর্থ অর্থাৎ সাপেক্ষতা থাকে তবেই সমাস বিধেয়। সাপেক্ষ পদসমষ্টির যদি সমাস অর্থাৎ একপদীভাব হয়, তবে বৃত্তিতে বিগ্রহস্থ পদগুলির পৃথক অর্থের প্রতীত না হয়ে একার্থীভাব হয়। অর্থাৎ মিলিতার্থের প্রতীতি ঘটে।

তাই সামর্থ দুই প্রকার। যথা- সাপেক্ষ সামর্থ ও একার্থীভাব সামর্থ।

Leave a Comment