ভারতবিবেকম্ নাট্যাংশ হতে ছোট প্রশ্ন ও উত্তর

একাদশ শ্রেণীর সংস্কৃত সিলেবাসের অন্তর্গত ভারতবিবেকম্ নাট্যাংশ হতে ছোট প্রশ্ন ও উত্তর গুলি নিম্নে দেওয়া হল।

ভারতবিবেকম্ নাট্যাংশ হতে ছোট প্রশ্ন ও উত্তর

১) ভারতবিবেকম্ নাটকের রচয়িতা কে?
উঃ- ড:যতীন্দ্রবিমল চৌধুরী।


২) যতীন্দ্রবিমল রচিত দুটি নাটকের নাম লেখ?
উঃ- i)ভারতবিবেকম্,ii)বিশ্ববিবেকম্।


৩) ভারতবিবেকম নাটকটি কয়টি দৃশ্যে বিভক্ত? কোন দৃশ্যটি পাঠ্যসূচির অন্তর্গত? তার নাম কি?
উঃ- ভারতবিবেকম নাটকটি দশটি দৃশ্যে বিভক্ত।
প্রথম দৃশ্যটি পাঠ্যসূচির অন্তর্গত।
তার নাম “শ্রীরামকৃষ্ণেন সহ শ্রীনরেন্দ্রস‍্য সাক্ষাৎকারঃ”।


৪) ভারতবিবেকম্ নাট্যাংশ স্থান,কাল, পাত্র নির্ণয় কর।
উঃ- স্থান- কলিকাতার সিমুলিয়া অঞ্চল সুরেন্দ্রনাথ মিত্রের বাড়ি।
কাল- ১৮৮১খ্রীঃ ১৬ নভেম্বর।
পাত্র- শ্রী রামকৃষ্ণ, সুরেন্দ্রনাথমিত্র, ভক্তবৃন্দ এবং নরেন্দ্রনাথ।


৫ ) শ্রী রামকৃষ্ণের দীর্ঘপিপাসা কীভাবে নিবারিত হয়েছিল?
উঃ- উত্তর সাধকের মুখপদ্ম দর্শন করে শ্রীরামকৃষ্ণের দীর্ঘপিপাসা নিবারিত হয়েছিল।


৬) শ্রীরামকৃষ্ণের বাক‍্য থেকে কি নির্গত হয়?
উঃ- অমৃতধারা।


৭) নরেন্দ্রনাথের ভক্তি মাহাত্ম‍্য কেমন ছিল?
উঃ- অপরিমিত।


৮) ভারতবিবেকম্ কি মূলক কাব‍্য?
উঃ- জীবনীমূলক।


৯) ভারতবিবেকম নাটকে দেবী ভবতারিনী নরেন্দ্রনাথকে কী নামে সম্বন্ধ করেছ?
উঃ- শ‍্যামা।


১০) নরেন্দ্রনাথের অবিশ্বাস কী ছিল?
উঃ- মানবশরীরে ভগবান সত্ত্বারোপ।


১১) শ্রীরামকৃষ্ণের হাসি থেকে কী বার হয়?
উঃ- অরুনকিরনরশ্মি।


১২) নরেন্দ্রনাথের সঙ্গে শ্রীরামকৃষ্ণের কোথায় দেখা হয়েছিল?
উঃ- কলকাতার শিমুলিয়া অঞ্চলে সুরেন্দ্রনাথের বাড়িতে।


১৩) সুরেন্দ্রনাথ কে?
উঃ- ভারতবিবেকম্ নাটকে একটি চরিত্র সুরেন্দ্রনাথ মিত্র। তিনি শ্রী রামকৃষ্ণের পরমভক্ত। কলকাতার সিমুলিয়া অঞ্চলে তার বাড়িতে শ্রীরামকৃষ্ণ স্বয়ং এসেছে।


১৪) শ্রীরামকৃষ্ণ ভবতারিণীর কাছে কি প্রার্থনা করেছিলেন?
উঃ- শ্রীরামকৃষ্ণ ভবতারিণীর কাছে সুখ ও ঐশ্বর্য নয়, তার উত্তর সাধক পাওয়ার ইচ্ছা জানিয়ে ছিলেন। যিনি জীব সেবায় প্রতি হবেন।

২১) নরেন্দ্রনাথ প্রথম জীবনে কোন ধর্মে বিশ্বাসী ছিলেন এই জন্য তিনি প্রতিদিন কোথায় যেতেন?
উঃ- ব্রাহ্ম ধর্মের বিশ্বাসী ছিলেন।
এই জন্য তিনি প্রতিদিন ব্রহ্মমন্দির যেতেন।


২২) নরেন্দ্রনাথ রামকৃষ্ণকে কোন সঙ্গীত শুনিয়েছিলেন? শ্রীরামকৃষ্ণ নরেন্দ্রনাথের কাছে কোন গান শুনতে চেয়েছিলেন ?

উঃ- শ্যামা সংগীত।


২৩) রামকৃষ্ণদেবের শরীর হতে কি নির্গত হচ্ছে?
উঃ- জ্যোতির্ধারা।


২৪) রামকৃষ্ণের বাক্য থেকে কী নির্গত হচ্ছে?
উঃ- সুধা বা অমৃত।


২৫) নরেন্দ্রনাথ কোন বংশের সন্তান ছিলেন?
উঃ- দত্ত বংশের।


২৬) শ্রী রামকৃষ্ণদেব প্রথমে কার বন্দনা করেছেন?
অথবা কাকে জননী হিসেবে সম্বোধন করেছেন?
অথবা কার জয়গান করেছেন?
উঃ- ভবতারিণী।


২৭) রামকৃষ্ণের মতে কোন বয়স শিক্ষার জন্য যথার্থ?
উঃ- তরুণ বয়স।


২৮) নরেন্দ্রনাথের চক্ষু কেমন ছিল?
উঃ- নরেন্দ্রনাথের চক্ষু ছিল আকর্ণ বিস্তৃত।


২৯) রামকৃষ্ণ কাকে শুভঙ্কর শিব বলে সম্বোধন করেছেন?
উঃ- নরেন্দ্রনাথকে।

৩০) অর্থ লিখ।
i)সৌদামিনী- বিদ‍্যুৎ।
ii) ক্লিশ্নতি-কষ্ট দিচ্ছে।
iii)নৃমুণ্ডমালিনী- ভবতারিনী।

৩১) শ্রীরামকৃষ্ণের মধ্যে মানসপুত্র কে?

উঃ-নরেন্দ্রনাথ।

৩২) নরেন্দ্রনাথের নাম শুনে রামকৃষ্ণের কি মনে হয়েছিল?
উঃ- নরেন্দ্রনাথ একজন সর্বনরশ্রেষ্ঠ।


৩৩) রামকৃষ্ণ কোন বস্তুকে অপূর্ব বলেছেন?
উঃ- মনকে।


৩৪) রামকৃষ্ণ মনকে অপূর্ব বলেছেন কেন?
উঃ- কারণ মন অনাগত কারণের সূচনা করে।


৩৫) কে “মৃষা ন নির্দিশসি’?
উঃ- ভবতারিণী।


৩৬) রামকৃষ্ণ কার জন্য কিভাবে প্রার্থনা করে চলেছেন?
উঃ- রামকৃষ্ণ নরেন্দ্রনাথ এর জন্য আকুল হয়ে দিনরাত্রি প্রার্থনা করে চলেছেন।


৩৭) নরেন্দ্রনাথের কেশ ও নয়ন এর বর্ণনা দাও।
অথবা রামকৃষ্ণের মতে নরেন্দ্রনাথের কেশ ও নয়নযুগল কেমন ছিল?
উঃ-রামকৃষ্ণের মতে কুঞ্চিত কেশরাশি মস্তকে সঞ্চিত ছিল এবং নয়ন ছিল আকর্ণ বিস্তৃত।


৩৮) রামকৃষ্ণের হৃদয়ের গর্জন কার সাথে তুলনা করা হয়েছে?
অথবা নরেন্দ্রনাথ কে দেখে রামকৃষ্ণের হৃদয় কেমন হয়েছিল?
উঃ- নরেন্দ্রনাথ কে দেখে রামকৃষ্ণের হৃদয় সাগর জলের জোয়ারের প্রবাহে গঙ্গার জলের ধারার মতো হয়েছিল।


৩৯)তরুণ বয়স শিক্ষার যোগ্য কেন?
উঃ- কারণ এই বয়সের কোমল হৃদয়ে সব কিছুই গাঁথা হয়ে থাকে।


৪০) রামকৃষ্ণের কেন মনে হল তার দীর্ঘদিনের তৃষ্ণা দূর হল?
উঃ- রামকৃষ্ণ তার শ্রেষ্ঠ ভক্ত সন্তানের পদ্মের মতো মুখ দর্শন করে দীর্ঘদিনের তৃষ্ণা দূর হল।


৪১) রামকৃষ্ণের মতে নরেন্দ্রনাথের হস্ত কেমন ছিল?
উঃ- হাতির শুঁড়ের মতো বিশাল।


৪২) নরেন্দ্রনাথের হৃদয় কি পান করছে?
উঃ- নরেন্দ্রনাথ রামকৃষ্ণের হৃদয়ের কিরণ সমূহ চোকরের মতো পান করছে।


৪৩) কে কাকে কেন ধিক্কার দিলেন?
উঃ- নরেন্দ্রনাথ ব্রহ্ম ধর্মে বিশ্বাসী হলেও রামকৃষ্ণকে দেখে মনে মনে দেবত্ব আরোপ করেন। এই জন্য তার যুক্তিবাদী মন নিজেকে এবং নিজের বিদ‍্যাকে ধিক্কার দেন।


৪৪) দেবী ভবতারিণী উদ্দেশ্যে রামকৃষ্ণ শেষ অংশে মনে মনে কি বলেছিলেন?
উঃ- মহাদেবী ভবতারিণী তুমি অত্যন্ত কৃপাময়ী যেহেতু এই বরণীয় সন্তানই দেশের সমস্ত কালিমা দূর করতে সক্ষম হবে।

৪৫) শ্রীরামকৃষ্ণের কেন মনে হল নরেন্দ্রনাথ জন্মজন্মান্তরের পরিচিত?
উঃ- শ্রীরামকৃষ্ণ ও নরেন্দ্রনাথের প্রথম সাক্ষাৎ-এ উভয়ে-উভয়ের মনকে আকৃষ্ট করে। সেই স্বাভাবিক আকর্ষনের জন্যেই রামকৃষ্ণের মনে হয়েছিল নরেন্দ্রনাথ জন্মজন্মান্তরের পরিচিত।


৪৬) নরেন্দ্রনাথ রামকৃষ্ণের কী রূপ প্রত্যক্ষ করেন?
উঃ- নরেন্দ্রনাথ রামকৃষ্ণের প্রথম দর্শনে কোটি কোটি সূর্যের প্রভাব এবং কোটি কোটি চন্দ্রের মতো হৃদয় আনন্দপথ প্রত্যক্ষ করলেন।


৪৭) নরেন্দ্রনাথ যে মাতৃবন্দনা গেয়ে শোনান তার ভাববস্তু কি?
উঃ- নরেন্দ্রনাথ শ্রীরামকৃষ্ণের অনুরোধে একটি মাতৃবন্দনা গেয়ে শোনান। এই মাতৃবন্দনাটির ভাববস্তু হল-মন হল আসল বস্তু এই মন দ্বারা মা ভবতারিণী কে অনুভব কর। কারণ তিনি জগতের পালক এবং সংসারের বন্ধন মুক্তকারী।


৪৮) অহর্নিশম- সংস্কৃত প্রতিশব্দ কী?
উঃ- নক্তন্দিবম্।


৪৯) তরুনে এব শিক্ষণীয়- উক্তিটির যৌক্তিকতা কি?
উঃ- তরুণদের হৃদয় কোমল। সুতরাং যা শিক্ষা দেওয়া হবে তা হৃদয়ে অঙ্কিত হয়ে থাকবে।


৫০) রামকৃষ্ণের হৃদয়ে বেদনার কারণ কি?
উঃ- জগতের শত শত দুঃখ-কষ্ট ও উত্তর সাধকের দর্শনের আকাঙ্ক্ষা শ্রীরামকৃষ্ণের হৃদয় বেদনার কারণ ।

৫১) ড.যতীন্দ্রবিমলচৌধুরী কোথায় জন্মগ্রহণ করেন?
উঃ- ১৯০৯ খ্রীঃ বাংলাদেশের চট্টগ্রামে জন্মগ্রহন করেন।


৫২) ভারত-বিবেকম্ শব্দটির সমাস নির্ণয় করো।
উঃ- ভারতস‍্য বিবেকঃ(ষষ্ঠী তৎপুরুষ সমাসঃ)।


৫৩) ভারতবিবেকম্ নাটকটির উৎস কী?
উঃ- রামকৃষ্ণদেব ও স্বামী বিবেকানন্দের বৃত্তান্ত অবলম্বনে রচিত ভারতবিবেকম্ নাটকের উৎস।


৫৪) নাটকটি কোন সময় অভিহিত হয়েছে?
উঃ- রাত্রি সাতটায়।


৫৫) নাটকটিতে মঞ্চে উপস্থিত চরিত্র কতজন?
উঃ- তিনজনের বেশি।


৫৬) নাটকটির নামকরন ভারতবিবেকম রাখা হয়েছে কেন?
উঃ- বিবেকানন্দ শব্দটির মধ্যে বিবেক শব্দটি আছে।তিনি ভারতের বিবেক তাই নাটকটির নাম ভারতবিবেকম।

শ্রীরামকৃষ্ণ নরেন্দ্রনাথের কাছে কোন গান শুনতে চেয়েছিলেন

শ্যামা সংগীত।

ভারতবিবেকম্ নাটকটির উৎস কী?

রামকৃষ্ণদেব ও স্বামী বিবেকানন্দের বৃত্তান্ত অবলম্বনে রচিত ভারতবিবেকম্ নাটকের উৎস।

Leave a Comment