কর্মযোগ ভাবসম্প্রসারণ –অসক্তো হ্যাচরণ কর্ম পরমাপ্নোতি পুরুষঃ

উচ্চ মাধ্যমিক দ্বাদশ শ্রেণীর সংস্কৃত সিলেবাস এর গুরুত্ত্বপূর্ণ অধ্যায় কর্মযোগ। এই কর্মযোগ হতে ভাবসম্প্রসারণ – অসক্তো হ্যাচরণ কর্ম পরমাপ্নোতি পুরুষঃ তুলে ধরা হল। উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ (WBCHSE ) কর্তৃক প্রকাশিত উত্তরটি নিচে দেওয়া হল –

উচ্চ মাধ্যমিক দ্বাদশ শ্রেণীর সংস্কৃত কর্মযোগ ভাবসম্প্রসারণ

কর্মযোগ হতে ভাবসম্প্রসারণ – অসক্তো হ্যাচরণ কর্ম পরমাপ্নোতি পুরুষঃ Modern Sanskrit কর্তৃক সম্পাদিত উত্তরটি নিচে দেখুন –

কর্মযোগ ভাবসম্প্রসারণ –অসক্তো হ্যাচরণ কর্ম পরমাপ্লোতি পুরুষঃ

কর্ম মানব জীবনের অস্ত্র। সাধারণ মানুষের কর্ম এবং কর্মযােগীর কর্মের মধ্যে অনেক পার্থক্য রয়েছে।সাধারণ মানুষ কামনা বাসনা রেখে কর্ম করে কিন্তু কর্মযােগী নিষ্কাম ভাবে কর্ম করেন।

নিঃস্বার্থ ভাবে কর্ম করলে মানুষ পরতত্ত্ব লাভ করে।সুতরাং কর্ম করতে হলে কামনা বাসনা রাখা চলবেনা। এতে সমাজের মঙ্গল সাধিত হয়। সমাজ তাকে মহাপুরুষের আসনে বসিয়ে পূজা করেন।যেমন বিভিন্ন মনিষীরা নিষ্কাম কর্ম করে পরম পদ লাভ করেছিল।

উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদ (WBCHSE ) কর্তৃক প্রকাশিত উত্তর

কর্মযোগ ভাবসম্প্রসারণ –অসক্তো হ্যাচরণ কর্ম পরমাপ্নোতি পুরুষঃ

আসক্তিহীনভাবে কর্ম করলে তবেই মানুষ সেই কর্মের উর্ধ্বে গমন করে। পরম বস্তুকে লাভ করতে পারে। নতুবা সেই কর্মের ক্ষুদ্র পরিসরেই বদ্ধ থাকে, কর্মের গন্ডি ত্যাগ করে যেতে পারে না।

ফলের আকাঙ্ক্ষা না করে শুধুমাত্র অনাসক্ত হয়ে কর্মফলের সঙ্গে যুক্ত না হয়ে যদি কর্মানুষ্ঠান করা যায় তাহলে সেই কর্মের ফল পুরুষকে বাঁধে না।অনাসক্তচিত্তে কর্মানুষ্ঠান করলে চিত্তের সমস্ত মালিনা নষ্ট হয়। এবং সেই নির্মল চিত্তে ব্রহ্মানন্দের আবেশ হয়।

 তাই কর্মত্যাগ নয়, আসক্তিহীন, ফলাকাঙ্ক্ষা হীন কর্মই মানুষকে মোক্ষমার্গে উপনীত করতে সক্ষম।

দ্বাদশ শ্রেণী সংস্কৃত কর্মযোগের অন্যান্য প্রশ্নগুলি

কর্মযোগ হতে অন্যান্য বাখ্যা

কর্মযোগ হতে অন্যান্য ভাবসম্প্রসারণগুলি

Leave a Comment