কারক: অর্থ পার্থক‍্য

কারক হতে অর্থ পার্থক‍্যদেওয়া হল। সূত্রের সাহায্য়ে কারকের অর্থ পার্থক্য আলোচনা করা হল।

কারক হতে অর্থ পার্থক‍্য

১) গ্রামং গচ্ছতি– গ্রামে যাচ্ছে। এই বাক‍্যটিতে কর্তুরীপ্সিততমং কর্ম– এই সূত্রানুসারে গ্রাম কর্তার ইপ্সিত হওয়ায় গ্রাম পদে গমণার্থক ধাতুর কর্ম কারকে দ্বিতীয়া বিভক্তি হয়েছে।

গ্রামায় গচ্ছতি– গত‍্যর্থকর্মণি দ্বিতীয়াচতুর্থ‍্যৌ চেষ্টয়া মনধ্বনি- এই সূত্রানুসারে শারীরিক প্রয়াস করে গ্রামে গমন করছে- এইরূপ অর্থ হওয়ায় গ্রামায় পদে গত‍্যর্থক ধাতুর কর্মে বিকল্পে চতুর্থী বিভক্তি হয়েছে।

২) বিবাদেয় অলম্– বিবাদে সমর্থ‍্য – এই বাক‍্যে শব্দটি নৈপুণ‍্যবাচক অলম্ শব্দের যোগে এখানে ‘নমঃ- স্বস্তি-স্বধালং – বষডযোগাচ্চ- এই সূত্রানুসারে বিবাদ শব্দে চতুর্থী বিভক্তি হয়েছে। যথা- অয়ং বালকঃ বিবাদায় অলম্।

বিবাদেন অলম্– বিবাদের প্রয়োজন নেই- এই বাক‍্যে অলম্ শব্দটি নিষেধার্থক। তাই নিষেধার্থক অলম্ শব্দের যোগে এখানে বিবাদ শব্দে তৃতীয়া বিভক্তি হয়েছে। যেমন- বন্ধুভিঃ সহ বিবাদেন অলম্। ঊনবারণ প্রয়োজনার্থেভ‍্যশ্চ।

৩) নটস‍্য গীতং শৃণোতি– নটের গীত কেবলমাত্র শুনছে এইরকম বোঝানোয় নট অপাদান না হয়ে নটস‍্য পদে ষষ্ঠী বিভক্তি হয়েছে।

নটাৎ গীতং শৃণোতি– ‘আখ‍্যাতোপযোগে- এই সূত্রানুসারে নটের নিকট হতে নিয়মপূর্বক গাথা শিক্ষা গ্রহণ করছে- এইরূপ বোঝানোয় নটাৎ পদে অপাদানে পঞ্চমী হয়েছে।

৪) বনম্ উপবসতি– এর অর্থ হল- বনে বাস করছে। উপান্বধ‍্যাঙ্ বসঃ – এই সূত্রানুসারে উপ-বস্ ধাতুর অর্থ বাস করা হওয়ায় আধার বন পদে কর্মকারকে দ্বিতীয়া বিভক্তি হয়েছে।

নে উপবসতি– এর অর্থ হল – বনে উপবাস করছে। এখানে উপ-বস্ ধাতুর অর্থ উপবাস বোঝানোয় ‘ অভুক্ত‍্যর্থস‍্য ণ’ – এই বার্তিক অনুসারে আধার বন পদে অধিকরণ কারকে সপ্তমী বিভক্তি হয়েছে।

৫) গ্রামাৎ পূর্বে বনম্– অন‍্যারাদিতরর্তে দিক্ শব্দাঞ্চুত্তরপদাজা হিযুক্তে- এই সূত্রানুসারে পূর্বদিক শব্দের যোগে গ্রামাৎ পদে অপাদান কারকে পঞ্চমী বিভক্তি হয়েছে। এর অর্থ হল গ্রামের বাইরে
পূর্বদিকে বন।

গ্রামস‍্য পূর্বে বনম্– তস‍্য পরমাম্রেড়িত- এই পাণিনী সূত্রানুসারে অবয়ববাচি যোগে তুণ্ – এই দীক্ষিত সূত্রানুসারে দিক্ শব্দ অবয়ব বাচক হলে পঞ্চমী না হয়ে ষষ্ঠী বিভক্তি হয়। এই নিয়ম অনুসারে অবয়ব বাচক পূর্ব শব্দের যোগে -গ্রামস‍্য পদে ষষ্ঠী বিভক্তি হয়েছে।

৬) দুর্জনাৎ ভয়ম্– দুর্জন হতে ভয়। ভীত্রার্থানাং ভয়হেতুঃ – এই সূত্রানুসারে ভয়ার্থক ধাতুর প্রয়োগে দুর্জন নিজে ভয়ের হেতু বলে অপাদানে পঞ্চমী বিভক্তি হয়েছে।

দুর্জনস‍্য ভয়ম্– দুর্জনের নিজের হতে ভয়। কর্তৃকর্মণোঃ কৃতি – এই সূত্রানুসারে দুর্জনস‍্য পদে কৃৎ যোগে কর্তায় ষষ্ঠী বিভক্তি হয়েছে।

৭) অরণ‍্যাৎ বিভেতি– এই বাক‍্যটির অর্থ হল- অরণ‍্য থেকে ভয় পাচ্ছে। যেহেতু এখানে ভয়ার্থক ধাতুর যোগে ভয়ের হেতু বা কারণ অরণ‍্য। তাই তাতে- ভীত্রার্থানাং ভয়হেতুঃ – এই সূত্রানুসারে অপাদানে পঞ্চমী বিভক্তি অরণ‍্যাৎ হয়েছে।

অরণ‍্যে বিভেতি– বাক‍্যটির অর্থ হল- অরণ‍্যের মধ‍্যে ভয় পাচ্ছে। এখানে অরণ‍্য ভয়ের হেতু বা কারণ না হয়ে আধার হওয়ায় এখানে অরণ‍্য পদে ‘ভীত্রার্থানাং ভয়হেতুঃ’ – এই সূত্রানুসারে পঞ্চমী বিভক্তি না হয়ে ‘আধারোঅধিকরণম্’- এই সূত্রানুসারে অরণ‍্য পদে অধিকরণ কারকে সপ্তমী বিভক্তি হয়েছে।

Leave a Comment