সমীভবন

সমীকরণ বা ব্যঞ্জনসঙ্গতি বা সমীভবন কাকে বলে?সমীভবনের অপর নাম কি?

সমীভবন কাকে বলে?

উচ্চারণের সুবিধার জন‍্য শব্দের মধ‍্যে পাশাপাশি অবস্থিত বা পরস্পরের সঙ্গে সংযুক্ত দুটি বিষম ব‍্যঞ্জন ধ্বনি অর্থাৎ পৃথক ধরনের ব‍্যঞ্জন একে অপরের প্রভাবে পরিবর্তিত হয়ে একই রকম ধ্বনিতে বা প্রায় অনুরূপ ধ্বনিতে রূপান্তরিত হয়ে যায়, সেই প্রক্রিয়াকে সমীভবন বলা হয়।

সমীভবন কত প্রকার

      সমীভবনকে ধ্বনি পরিবর্তনের রীতি অনুযায়ী তিন ভাগে ভাগ করা যায়। যথা :-

  • ১. প্রগত সমীভবন।
  • ২. পরাগত সমীভবন।
  • ৩. অন‍্যান‍্য সমীভবন।

১) প্রগত সমীভবন

পূর্ববর্তী ধ্বনির প্রভাবে পরবর্তী ধ্বনির তৎ সাদৃশ‍্য সমতালাভের উপায়কে বলা হয় প্রগত সমীভবন।

যেমন:- (সংস্কৃত ) চক্র > চক্ক, cakra > cakka.
(সংস্কৃত) পদ্ম > পদ্দ, Padma > padda.
অর্থাৎ ক এর প্রভাবে র তে রূপান্তরিত হয়েছে। এবং দ এর প্রভাবে ম, দ তে পরিণত হয়েছে।

২) পরাগত সমীভবন

পরবর্তী ধ্বনির প্রভাবে পূর্ববর্তী ধ্বনির তৎ সাদৃশ‍্য সমতালাভের উপায়কে বলা হয় পরাগত সমীভবন।

যেমন:- তদ্  + ন = তন্ন।
পরবর্তী ণ এর প্রভাবে পূর্ববর্তী দ কার ন করে পরিণত হয়েছে।
এছাড়াও পরাগত সমীভবনের অন‍্যান‍্য উদাহরণ গুলি হল-
(সংস্কৃত) কর্ম > (প্রাকৃত) কম্ম। Karma > kamma.
(সংস্কৃত) ধর্ম > (প্রাকৃত) ধম্ম। Dharma > dhamma.

৩) অন‍্যান‍্য সমীভবন

পরস্পর সন্নিহিত দুটি ধ্বনি পরস্পরের প্রভাবে উভয়ের পরিবর্তনের ফলে ধ্বনি দুটির সমান ধ্বনিতে পরিণত হওয়াকে বলা হয় অন‍্যান‍্য সমীভবন।
                                                 
যেমন:- উৎশ্বাস > উচ্ছ্বাস. Utsvasa > Ucchbasa.
  বৎসর > বচ্ছর. Batsara > bacchara.

সমীভবন কাকে বলে?

উচ্চারণের সুবিধার দুটি বিষম ব‍্যঞ্জন ধ্বনি একে অপরের প্রভাবে পরিবর্তিত হয়ে একই রকম ধ্বনিতে রূপান্তরিত হয়ে যায়, সেই প্রক্রিয়াকে সমীভবন বলা হয়।

সমীভবনের অপর নাম কি?

সমীকরণ বা ব্যঞ্জনসঙ্গতি।

Leave a Comment